গরীব. দুঃস্থ ও নিন্ম আয়ের মানুষের পশে দারিয়েছেন “ কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের যুবলীগ নেতা সাত্তার

হাফিজুর রহমান,নারায়ণগঞ্জ থেকে: কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস আতঙ্কে যখন নারায়ণগঞ্জে-লক ডাউন ঘোষন করা হয় তখন গরীব. দুঃস্থ ও নিন্ম আয়ের মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়ে। সেই সকল মানুষের ক্ষুধা নিবারনের জন্য নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাত্তার সরকারের চাচা আব্দুর রহিম সরকারের পরিবারের উদ্যোগে আসছে পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষে আজ সকালে ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে হতদরিদ্র ও ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন।

এর আগে গত ১৩ এপ্রিল সোমবার নারায়ণগঞ্জ ২ আসনের সংসদ সদ্যস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম বাবুর নির্দেশে যুবলীগ নেতা সাত্তার সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের কদমীরচর,বদলপুর, নয়াঁগা ও সুরুজ নগর, এলাকার ২শতাদিক কর্মহীন মানুষের মাঝে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন।

ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে প্রতিপরিবারের জন্য ছিলো চাল, ডাল, আলু. তেল. পিয়াজ, আটা লবন ডিম সহ বিভিন্ন খাদ্য উপকরন।ওই দিন সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সকাল থেকে এই ত্রাণ সামগ্রী গ্রহন করেন কর্মহীন মানুষেরা।

ত্রাণ সামগ্রী বিতরন কালে যুবলীগ নেতা সাত্তার সরকার বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নারায়ণগঞ্জ ২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম বাবু ভাইয়ের নির্দেশে আমি করোনায় আতঙ্কিত কর্মহীন মানুষের পাশে ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে উপস্থিত হয়েছি। প্রথমে এলাকায় ঘুরে প্রকৃত সহায় সম্বলহীন ও ক্ষুধার্ত মানুষের তালিকা করি।
পরে প্রতিটি পরিবারের ৫ থেকে ১০ দিনের জন্য যে পরিমান খাবার প্রয়োজন হয় সেই পরিমান ত্রাণ প্রত্যেকের হাতে তুলে দেই। এই সময় সামজিক দূরত্ব বজায় রাখা হয়। এই মহামারী যদি দীর্ঘস্থায়ী হয় তাহলে আমাদের ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।