আওয়ামী লীগের আয় ৩৫ শতাংশ বেড়েছে

1

২০১৮ সালের দলটির বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন অনুসারে আওয়ামী লীগের আয় ৩৫ শতাংশ বেড়েছে।

আওয়ামী লীগ আজ ২০১৯ সালে তার তহবিল দেখিয়েছে ৫০,৩৭,৪৩,৫৯৩ টাকা Last গত বছরের আয় ২১,০২,৪১,৩৩০ছিল।

২০১৮ সালে, তহবিল ছিল ৩৭,৫৬,০৩,৮৩৮ টাকা।

আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ডাঃ আবদুস সোবহান গোলাপ এবং দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া আজ ২০১৯ সালের বর্ষপঞ্জী বার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন দাখিল করেছেন এবং জনগণের আদেশের (আরপিও) ১৯৭২ সম্পর্কে লিখিত মতামত নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব এম আলমগীরের কাছে জমা দিয়েছেন শহরের আগারগাঁও অঞ্চল।

আয়ের প্রধান উত্স ছিল দলীয় সদস্যদের কাছ থেকে মনোনয়নের ফরম, ফি এবং অনুদান বিক্রয়। এদিকে, ব্যয়ের মূল উত্স ছিল কর্মচারীদের বেতন-বোনাস, সেমিনার আয়োজন এবং ইউটিলিটি বিল।
গোলাপ বলেন, উল্লেখযোগ্য আয় ছিল – মনোনয়ন ফরম বিক্রি থেকে প্রাপ্ত ১২,৩২,৩০,০০০ টাকা, সম্মেলন থেকে ৩,০২,৫৫,৮০০ টাকা, ব্যাংক লভ্যাংশে ২,৩৩,৭৫,২২৩ টাকা এবং সাবস্ক্রিপশন থেকে ১,০৭,৬৪,০০০ টাকা সংসদ সদস্য।

অন্যদিকে আ.লীগ জাতীয় সম্মেলনে ৩৩৩৩,১৪,৮০০ টাকা ব্যয় হয়েছে বলে তিনি জানান।

রিপ্রেজেন্টেটিভ অফ পিপল অর্ডার অনুসারে, নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলি প্রতি বছর ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে তাদের বার্ষিক নিরীক্ষা প্রতিবেদন নির্বাচন কমিশনে জমা দিতে বাধ্য। যদি কোনও দল পর পর তিন বছর তাদের বার্ষিক রিটার্ন জমা না দেয় তবে নির্বাচন কমিশন তার নিবন্ধন বাতিল করতে পারে।