করোনায় করুণ অবস্থা কুয়েত প্রবাসীদের

0

সোহাগ ইব্রাহীম, কুয়েত থেকে: করোনাভাইরাস কভিড-১৯ এ পুরো বিশ্ব এখন আতংকিত। বিশ্বের প্রায় সবদেশেই এই ভাইরাস হানা দিয়েছে। ভাইরাসটি চীনের উহান শহর থেকে শুরু হয়ে এখন বিশ্বকে মৃত্যুপুরীতে পরিণত করেছে।
ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স,ইরান, আমেরিকাতে এখন বাতাশে লাশের গন্ধ। মধ্যপ্রাচ্যের সবকটি দেশেই বিরাজ করছে কভিড-১৯ ভাইরাস। কুয়েতও বাদ যায়নি এই মহামারি থেকে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারিতে কুয়েতে প্রথম ভাইরাসটির সন্ধান মিলে ইরান থেকে আসা একটি ফ্লাইটে ৩ জন ব্যক্তির মাঝে। আস্তে আস্তে বৃদ্ধি পেতে থাকে রুগীর সংখ্যা।
কুয়েত সরকার এই ভাইরাস মোকাবেলায় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেন।তারই ধারাবাহিকতায় সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেন।সেই সাথে বিভিন্ন শপিং মল,রেস্তোরাঁ এবং বাহিরে কাজ কর্ম বন্ধ করে দেন।

এই অবস্থায় বিপাকে পরেন প্রায় ৮ লক্ষ কুয়েত প্রবাসী। প্রবাসীদের কাজ কর্ম না থাকায় তাদের বাড়ি ভাড়া, খানার টাকা এবং আকামার টাকা কিভাবে জোগার করবে তা ভেবে দিশেহারা।তার উপর আবার পরিবারের খরচ কিভাবে দিবে তা ভেবে পাচ্ছেন না।কিছুদিন আগে এই পরিস্থিতিতে মানুষিক চাপ সহায় করতে না পেরে বাংলাদেশী এক যুবক আত্মহত্যা করেন।

কভিড -১৯ এ কুয়েতে এখনো পর্যন্ত ৩৪২ জন আক্রন্ত হয়েছে।সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে ৮১ জন এবং ১৫ জন আইসিইউ’তে রয়েছেন।
উল্ল্যেখ যে, গত ২৩ সে মার্চ থেকে অনির্দিষ্ট কালের জন্যে দেশটিতে বিকাল ৫টা থেকে ভোর ৪ টা পর্যন্ত ১১ ঘণ্টার কার্ফিউ জাড়ি রয়েছেন।