করোনায় লেবুর বাজার গরম!

0

সারোয়ার হোসেন জীবন ও তারেক সালমান: রাজধানীর বাজারে এখন প্রতি হালি লেবু বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা। যা রীতিমতো অবিশ্বাস্য! করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে লেবু কার্যকর ভূমিকা রাখে-এমন খবরে সাধারণ মানুষের মধ্যে লেবু খাওয়ার প্রতি আগ্রহ বেড়েছে।

আর এই আগ্রহকে পুঁজি করে এক শ্রেণির ব্যবসায়ী ইচ্ছামতো লেবুর দাম বাড়িয়েছে। ‘রস নেই’ এমন লেবুর হালিও ৬০ টাকা। অথচ মাসখানেক আগেও প্রতি হালি লেবু বিক্রি হয়েছে ১৫ থেকে ২৫ টাকার মধ্যে।

শুক্রবার রাজধানীর কাওরানবাজার ও তুরাগ এলাকার নতুন বাজারে গিয়ে দেখা যায়, প্রতি হালি লেবু ৬০ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নতুন বাজারের সবজি ব্যবসায়ী আকরাম বলেন, করোনার জন্য লেবুর দাম বেড়েছে। চাহিদা এতো বেশি যে, রস হয় নাই এমন লেবুও চাষীরা এখন বাগান থেকে তুলে বিক্রি করছেন।

এদিকে রাজারগুলোতে ঘুরে দেখা যায়, ক্রেতাদের ভিড় কম। করোনা ভাইরাস সংক্রমের আতংকে প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হচ্ছেন না কেউ। বেশিরভাগ মানুষ গত সপ্তাহে প্রয়োজনীয় নিত্যপণ্য কিনেছেন। শুক্রবার বাজারে রসুন, আদা, ডিম ও মোটা চালের দাম কমেছে। আমদানিকৃত রসুন কেজিতে ১০ টাকা কমে ১৪০ থেকে ১৭০ টাকা ও দেশি রসুন কেজিতে ৪০ টাকা কমে ৯০ থেকে ১১০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দেশি আদা কেজিতে ১০ থেকে ২০ টাকা কমে ১২০ থেকে ১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তবে আমদানিকৃত আদার দাম কেজিতে ১০ টাকা বেড়ে ১৬০ থেকে ১৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া মোটা চালের কেজিতে ২ টাকা কমে ৩৮ থেকে ৫০ টাকায় ও মাঝারি মানের চাল পাইজাম/লতা ২ টাকা কমে ৪৮ থেকে ৫৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। অন্যান্য চালের মধ্যে সরু জাতের নাজিরশাইল/মিনিকেট ৫৫ থেকে ৬৮ টাকা বিক্রি হচ্ছে।