নতুন আইফোনে চীনের নেভিগেশন!

2

যখন ভারত, ইউরোপ এবং আমেরিকাসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ চীনের উপর মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে তখনই জানা গেল অ্যাপলের নতুন আইফোনে ব্যবহৃত হতে পারে চীনের নেভিগেশন সিস্টেম। অ্যাপলের নতুন আইফোন ১২ সিরিজের স্মার্টফোনগুলোতে বেইদু নামের চাইনিজ নেভিগেশন সিস্টেম দেওয়ার ভাবনা চিন্তা করছে। বেইদু নেভিগেশন সিস্টেম প্রায় ২০০টি দেশের ওপর নজর রাখে। সারা বিশ্বে এই নেভিগেশন সিস্টেমটির প্রায় ১০০ মিলিয়ন ইউজার এবং প্রতিদিন ২০০ মিলিয়ন সেশন রয়েছে।

জিএসএম এরিনার প্রতিবেদন অনুযায়ী, বেইদুর মুখপাত্র তথা চীনা স্যাটেলাইট নেভিগেশন অফিসার রান চেঙ্গকি বলেছেন, খুব শিগগিরই অ্যাপল স্মার্টফোনে, বেইদু ব্যবহার করা হতে পারে। এর আগে কোনো আইফোনেই বেইদুর নেভিগেশন সিসটেম ব্যবহার করা হয়নি।

বেইদু এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের বেশিরভাগ দেশগুলিতে বিশেষত স্থানীয় বাজারের ডিভাইসগুলোতে সাপোর্ট করবে। ইতিমধ্যে এই সিস্টেম বিশ্বের ১২০ টিরও বেশি দেশে ব্যবহৃত হচ্ছে।

চলতি বছরের ২৩ জুন চীন গ্লোবাল পজিশনিং সিস্টেম বেইদু সর্বশেষ স্যাটেলাইট সফলভাবে উৎক্ষেপণ করেছে। স্যাটেলাইটটি লঞ্চ হওয়ার পর চীন, আমেরিকান জিপিএসেরর মতো টেকনোলজি অর্জন করেছে। মনে করা হচ্ছে, এই চাইনিজ জিপিএস সক্রিয় হওয়ার সাথে সাথে চীনের নৌবাহিনী ও বিমানবাহিনী আরো জোরদার হবে।

চীনের জিপিএস বেইদু ৩০টি স্যাটেলাইট দিয়ে তৈরি। এর মধ্যে ২৯ টি স্যাটেলাইট আগেই চালু করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে শেষ স্যাটেলাইটের সফল উৎক্ষেপণের পর চীন এখন বিশ্বব্যাপী জিপিএস কভারেজ অর্জন করেছে।

কয়েকদিন পরেই আইফোন ১২ সিরিজের ৪টি নতুন ডিভাইস বাজারে আসবে, যেখানে দুটি প্রিমিয়াম ভ্যারিয়েন্টের ফোনও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। তবে এই সিরিজের কোন স্মার্টফোনে চাইনিজ নেভিগেশন সিস্টেম দ্বারা সমর্থিত হবে, সে সম্পর্কে এই মুহূর্তে কোন খবর নেই। তবে আইফোনে চাইনিজ নেভিগেশন সিস্টেমের প্রকাশের খবর এমন এক সময়ে এসেছে যখন বিশ্বজুড়ে চীনকে সংশয়ের দৃষ্টিতে দেখা হচ্ছে এবং আবার কোথাও কোথাও দেশটি গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগের মুখোমুখি হচ্ছে।