নারায়ণগঞ্জে গার্মেন্টসকর্মীকে ”গণধর্ষণ” গ্রেপ্তার ৫

1

নারায়ণগঞ্জে এক গার্মেন্টসকর্মী তরুনী গণধর্ষনের শিকার হয়েছে। পুলিশ  ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার গভীর রাতে সদর উপজেলার ফতুল্লার পাগলা খেয়াঘাটের পাশে বালুর ঘাটে। অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশ বুধবার গভীর রাত হতে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ফতুল্লার পাগলা ও আলীগঞ্জ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো, সোনারগায়ের মুসার চর ভূইয়াপাড়া এলাকার আব্দুর রহিমের ছেলে রবিন (২১), ফতুল্লার আলীগঞ্জের শিবলু কাজীর বাড়ির ভাড়াটিয়া নুরুল ইসলামের ছেলে আল আমিন (২১), আলীগঞ্জের জোড়া ৫ তলার পাশে মহিবুল্লাহর ছেলে হিমেল (২০), আলীগঞ্জের রেললাইন এলাকার মৃত সেলিম মিয়ার ছেলে মোস্তাক (২২), একই এলাকার পলাশ নেতার তেলের পাম্পের পাশে আকবর বেপারীর বাড়ির ভাড়াটিয়া আব্দুল আউয়াল হাওলাদারের ছেলে মাসুম (২০)।

ফতুল্লা মডেল থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন ধর্ষণের শিকার গার্মেন্টস কর্মীর বরাত দিয়ে বলেন, কেরানীগঞ্জের পানগাও এলাকার ১৮ বছরের এক তরুনী ফতুল্লার বিসিক শিল্পনগরীর একটি গার্মেন্টে চাকরী করে। প্রতিদিন বিকেল ৫ টায় আবার কোন সময় রাত ৮ টায় গার্মেন্ট ছুটি হওয়ার পর অন্যান্য সহকর্মীদের সঙ্গে বাসা চলে যান। বুধবার কাজের চাপ থাকায় ওভারটাইম শেষ হওয়ার পর রাত ১২ টায় ছুটি হয়। তার পর একই কারখানায় চাকরী করে এক বান্ধবীর সঙ্গে বাসার উদ্দেশে রওনা হয়।