নারায়ণগঞ্জ কারাগারে বিশেষ ব্যবস্থা

2

নিজস্ব প্রতিবেদক:নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারে সাড়ে ১৭শ বন্দিদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এবং করোনা ভাইরাস থেকে নিরাপদে রাখতে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি বন্দিদের স্বজনদের এই সময়ে তাদের সঙ্গে সাক্ষাতে নিরুৎসাহিত করছেন কারা কর্তৃপক্ষ।

সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এসব কথা জানান নারায়ণগঞ্জ জেলা কারাগারের জেল সুপার সুভাষ কুমার ঘোষ।

কারাবন্দিদের পাশাপাশি কারাগারে থাকা স্টাফ ও কারারক্ষীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় বিভিন্ন পদক্ষেপের বিষয়ে খোলামেলা কথাও বলেন তিনি।

তিনি জানান, আমরা করোনা ভাইরাস বিশ্বে ছড়ানোর পরেই এখানে সতর্কতা জারি করেছি। বাংলাদেশে এ ভাইরাস পাওয়ার পর আমরা কারাবন্দি ও কারারক্ষীসহ এখানেই আসা সবাইকেই করমর্দন (হ্যান্ডশেক) ও কোলাকুলি করতে একেবারেই নিষেধ করেছি। ভেতরে ও বাইরে সবাই সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে বলা হয়েছে এবং তারা এটি করছেন। কারাবন্দিদের সঙ্গে যারা দেখা করতে আসছেন তাদেরও আমরা হাত মুখ ধুয়ে তারপর দেখা করতে দিচ্ছি।

তিনি আরও জানান, বর্তমান এই ভাইরাসকালীন আমরা আপাতত কারাবন্দিদের সঙ্গে সাক্ষাতের জন্য তাদের স্বজনদের নিরুৎসাহিত করছি। এতে করে কারাবন্দি, কারারক্ষী ও তাদের স্বজনরা নিরাপদ থাকবেন।

জেল সুপার জানান, আমাদের মেডিক্যাল টিম নতুন বন্দি যারা আসছেন তাদের চেকআপ করছেন তাদের কোনো উপসর্গ রয়েছে কিনা এ রোগের। একইসঙ্গে ভেতরের সবাইকেও চেকআপের মধ্যেই রাখা হয়েছে। কারো কোনো উপসর্গ দেখা দিলে যা এ রোগের সঙ্গে সম্পৃক্ত তাদের দ্রুত চিকিৎসা ব্যবস্থার আওতায় আনা হবে।

সুভাষ কুমার ঘোষ জানান, আমাদের বন্দি, স্টাফ ও কারারক্ষীদের জন্য আমরা মাস্কের ব্যবস্থা করেছি যা সোমবার (১৬ মার্চ) সবার মধ্যে বিতরণ করা হবে। এছাড়া যেসব কারাবন্দিকে আদালতে নিয়ে যাওয়া ও নিয়ে আসা হয় তাদেরও সেই মাস্ক পরতে দেওয়া হবে এবং তাদের যাওয়া ও আসার সময় সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত ধোয়ানো হবে।

তিনি জানান, পুরো কারাগারের ভেতরে ও বাইরে সব সময় অধিকতর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হচ্ছে। পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রেখে করোনা ডেঙ্গুসহ সব ভাইরাস থেকে কারাবন্দিসহ এখানকার সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য চেষ্টা চলছে।