পানির পাইপ বসানো নিয়ে গুজব

2

মিনহাজ উদ্দিন পেকুয়া: কক্সবাজার জেলায় পেকুয়া উপজেলা উজানটিয়া ইউনিয়নে একটা পানির ‍ স্লুইস বসানো নিয়ে সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু অসাধু লোক গুজব সৃষ্টি করছে । এই নিয়ে এলাকার বাসীর মধ্যে বিভিন্ন শস্কা বিরাজ করছে ।মাছ চাষের মাধ্যেমে দেশের অথনীতির চাকা ‍সচল রাখতে ও বেকার সমস্য দূরীকরণের জন্য এই স্লুইস বসানোর মূল কারণ হিসাবে চিহ্ন করা হয় ।

উজানটিয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলামে অনুমতি নিয়ে এই পানির স্লুইস বসানো হয় । চেয়ারম্যান বলেন , দেশের মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধির জন্যে এই পানির স্লুইস বসনো অনুমতি দেওয়া হয়া । এর মাধ্যমে দেশের বেকারক্ত সমস্যা দূর হবে । দেশের মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে । সেই এলাকায় বর্ষা কালে কিছু নিচু ঘর পানির মধ্যে ডুবে যায়। স্লুইস বসানো মাধ্যেমে এই সমস্য দূর হবে ।

প্রায় কয়েকশত পরিবারের জমি আছে, স্লুইস না হলে জমিগুলোর প্রকৃত ব্যবহার করা যাবেনা, এতে করে সরকার রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হবে এবং এলাকার লোকজন আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

মছের প্রজেষ্টের মধ্যে যেসব শ্রমিক কাজ করে সংসার চালায় তারা বেকার হয়ে যাবে। করোনার মত পরিস্থিতিতে যেখানে অনেক মানুষ বেকার হয়ে গেছে তাদের সংখ্যাটা যেন আর দীর্ঘ না হয়, সরকারের কাছে জনগনের দাবী । আর অতীতে নদী ভাঙনের যে কারন দেখানো হয়েছে তা শুধু প্রাকৃতিক কারনে। তার প্রমান হল একই এলাকার রূপালীবাজার পাড়ায় যে যায়গায় সব থেকে বেশি ভাঙন হয় সে জায়গায় কোন নাশি নাই, তার পরেও নদী ভাঙন প্রতিরোধ করা যাচ্ছে না । এলাকায় নদী ভাঙণের মূল কারণ হচ্ছে নদীর প্রবল পানির ‍স্রুদ ও নদীর গভীরতা ।

টেকপাড়া এলাকায় স্বাভাবিক নিয়মে স্লুইস বাদ দিয়ে অনেক জায়গায় ভাঙন হয়। তখন জমির মালিকগন নিজ অর্থায়নে প্রত্যেকবার বাঁধ নির্মান করে আসছে। এবারও কোন ক্ষতি হলে জমির মালিকরা ইউপি চেয়ারম্যানকে বাঁধ নির্মানের অঙ্গীকার করে ।

বাঁধ ভাঙ্গনে সব থেকে ক্ষতিগ্রস্ত হবে জমির মালিকগণ, বর্তমানে মৎস্য চাষের অনেক জমি ফাকা পড়ে আছে।পানির স্লুইস বসানোর মাধ্যমে দেশের মৎস্য উৎপাদন বৃ্দ্ধি করতে চাই এলাকার মাছ চাষীরা

মাছ চাষ করে দেশের অর্থনীতি উন্নয়ন ও বেকার সমস্য দূর করতে এই পানি স্লুইস বসানো হয় ।

এই বিষয় নিয়ে গুজব ছড়ানো জন্য এলাকারা মৎস্য চাষীরা প্রতিবাদ করে ।

দেশের মৎস্য সম্পদ বাচাঁনোর জন্য মাছ চাষীরা সরকারে কছে দাবী জানায়, গুজব কারীদের বিরুদ্ধে অইনের ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ।

পানি উন্নয়ন বোড ও পেকুয়া উপজেলা প্রশাসনের কাছে মাছ চাষীদের জোরালো দাবী পানির স্লুইস বসানোর মাধ্যেমে হাজার মানুষের জীবিকা রক্ষা করতে ।