মহেশখালীতে জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংর্ঘষে স্কুল ছাত্রী সহ আহত ৯

1

কক্সবাজার প্রতিনিধি:মহেশখালীতে জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষের সংর্ঘষে এক স্কুল ছাত্রী সহ ৯ জন আহত হয়েছে।
২৮ মে বৃহস্পতিবার সকাল অনুমান সাড়ে ১১ টায় মহেশখালী উপজেলার অন্তর্গত কুতুবজোম ইউপিস্থ তাজিয়াকাটা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়ঃ-
কুতুবজোম তাজিয়াকাটা গ্রামে রাজা বর গ্রুপ ও লালু বর গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জমি জমা চিংড়িঘের সহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো।
আজ সকালে একটি খোলা জায়গা উভয় গ্রুপের কিছু বকাটে যুবক জুয়া খেলাকে কেন্দ্র করে সংর্ঘষে সৃষ্টি হয়।
পরে এই সংর্ঘষে দুগ্রুপের মধ্যে দেশীয় তৈরীর লম্বা কিরিস নিয়ে উভয় পক্ষের লোক জন সংর্ঘষে জড়িয়ে পড়লে মুহুর্তের মধ্যে এটি ভয়াবহ মামলায় রুপ নেয় এতে উভয় পক্ষের ৯ জন আহত হয়।
আহতের মধ্যে এক স্কুল ছাত্রী ও রয়েছে।
আহতরা হলেন, ফরিদ মিয়া, নছরত আলীর পুত্র,মোস্তাক মিয়া, নছরত আলীর পুত্রআবু বক্কর ছিদ্দিক, বদ মিয়ার পুত্র,বদ মিয়া, নছরত আলীর পুত্র,জোবাইর, আবুল কাসেমেরর পুত্র,মিজান, বদ মিয়ার পুত্র,
শহিদুল্লাহ, ফরিদ মিয়ার পুত্র,ডলি আক্তার কুতুবজোম হাই স্কুলের ৯ম শ্রেনীর ছাত্রী, মোস্তাক মিয়ার কন্যা।নুর আনকিজ বেগম, মফিজুর রহমানের স্ত্রী।
উক্ত ঘটনায় আহতরা জানানঃ-
স্থানীয় জাহাঙ্গীর,রহিম মিয়া,কোরবান আলী সহ ২০ জনের একটি দল আমাদের উপর হামলা করে এতে আমাদের ঘরের মা বোন সহ অনেকেই আহত হয়েছে।
জাহাঙ্গীর গ্রুপের দাবী,বদ মিয়ার ছেলেরা আমাদের উপর দা কিরিস নিয়ে কোন কারন ছাড়া হামলা করেছে।
মহেশখালী থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) প্রভাষ চন্দ্র ধর জানানঃ-ঘটনার খবর পেয়ে দ্রুত পুলিশ পাঠানো হয়েছে জড়িতদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলমান।
বর্তমান পরিস্থির গ্রুপ মিলে মারামারি করা খুবই দুঃখ জনক, আমরা তাদের নিয়ন্ত্রনে কাজ করছি, পাশাপাশি আইন শৃংখলা ভঙ্গ করলে কঠিন ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।