মানবতার সেবায় আবুল কালাম ফাউন্ডেশন

1

আসাদুজ্জামান ‍নূর,সোনারগাঁ থেকে: সারা বিশ্বে করোনার ভয়াবহতায় বিপর্যস্থ সাধারন মানুষ যখন মানবেতর জীবন যাপন করছে। ঠিক সে মুহুর্তে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ডাকে সাড়া দিয়ে নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলায় অবস্থিত চৈতী কম্পোজিট লি: এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও আবুল কালাম ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মো: আবুল কালাম এগিয়ে এসেছেন মানবতার কল্যানে।

এ ফাউন্ডেশন জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয় সহ বিভিন্ন জায়গায় প্রায় চার হাজার ব্যাগ খাদ্য (যেমন: চাল, ডাল, আলু, পিয়াজ, লবন, তৈল ও সাবান) সহ খাবার গরিব অসহায় ও মেহনতি মানুষের মাঝে বিতরন করেছেন।

এ অবস্থায় স্বনাম ধন্য প্রতিষ্ঠানটির সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য একটি মহল পায়তারা চালাচ্ছেন। চৈতী গ্রুপের কাটিং ইনচার্জ শাহাদাত হোসেন সুমন বলেন আমাদের কারখানায় মার্চ মাস পর্যন্ত বেতন পরিশোধ করা হয়েছে।

এখানে কোন শ্রমিকের বকেয়া বেতন পাওনা নাই। সুইং সেকশনের সুপারভাইজার, সৌরভ মিয়া বলেন আমাদের কারখানারয় কোন শ্রমিক ছাটাই করা হয় নাই গত ২৮/০৩/২০২০ তারিখ থেকে করোনার কারনে শ্রমিকদের সাধারন ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে।

চৈতী কম্পোজিট লিমিটের এর ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (এডমিন) মো: মিজানুর রহমান গত তিন মাসের বকেয়া বেতন ও শ্রমিক ছাটায়ের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি ক্ষোভের সহিত বলেন কতিপয় নাম মাত্র অনলাইন পত্রিকা আমাদের প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুন্য করার জন্য মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ প্রকাশিত করেছে। প্রকাশিত সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন আমাদের কারখানা টি দেশের প্রচলিত আইন ও কমপ্লায়েন্স অনুসরন করে পরিচালিত হচ্ছে।

আমরা যথা সময়ে শ্রমিকদের বেতন ও ভাতাদি পরিশোধ করে থাকি। তিনি আরো বলেন আমাদের কারখানাটি করোনা ভাইরাস ও কাচাঁমালের অভাবে অনিদিষ্ট কালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। তবে বন্ধ কালীন সময়ের জন্য শ্রমিকরা শ্রম আইন অনুয়াযী তাদের বেতন ও ভাতাদি যথা সময়ে পাবেন বলে জানান এ কর্মকর্তা।