সাকিবের অপেক্ষায় প্রহর গুনছেঃ বিসিবি

1

আইসিসির নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আগামী ২৯ অক্টোবর থেকে মুক্ত হবেন সাকিব আল হাসান। ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করে নিষিদ্ধ হওয়া এই অলরাউন্ডারকে দ্রুতই জাতীয় দলে চায় বিসিবি এবং তাকে শ্রীলঙ্কা সফরে পাঠানোর চিন্তা করছে। গতকাল বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন অকপটে বলেছেন, সাকিবকে পাওয়ার অপেক্ষায় আছে বিসিবি।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদতবার্ষিকী ও ১৫ আগস্টে শহিদ হওয়া সকলের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিসিবি আয়োজিত দোয়া-মাহফিলে এসেছিলেন বিসিবি সভাপতি। প্রায় ১৪৮ দিন পর বিসিবি কার্যালয়ে এসে পাপন বলেছেন, লঙ্কা যাওয়ার আগে তিনবার করোনা টেস্ট করা হবে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের। করোনার প্রকোপ না কমলে বা ভ্যাকিসন আবিষ্কার না হলে দেশে ঘরোয়া ক্রিকেট শুরুর সম্ভাবনা নেই।

সাকিবকে শ্রীলঙ্কা পাঠানোর বিষয়ে গতকাল বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘যখনই তার নিষেধাজ্ঞা উঠে যাবে তারপরই সে আমাদের সঙ্গে খেলতে পারবে। তখন থেকেই সে অ্যাভেইলেভল। আমরা সবাই অধীরে আগ্রহে বসে আছি সে কবে ফিরবে। কিন্তু এটার সঙ্গে তার ফিটনেস এবং প্রস্তুতির ব?্যাপার আছে। আশা করছি, সে ফিট থাকবে, সবই থাকবে এবং আমাদের সঙ্গে শ্রীলঙ্কায় জয়েন করতে পারবে, খেলতে পারবে।

শ্রীলঙ্কা যাওয়ার আগে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের তিনবার করোনা পরীক্ষা হবে। ক্যাম্প হবে সংক্ষিপ্ত। আবাসিক ক্যাম্পের জন্য হোটেল বা বাসা খুঁজছে বিসিবি।

করোনা বিবেচনায় বাংলাদেশের চেয়ে শ্রীলঙ্কা নিরাপদ। তাই ওখানেই ক্যাম্পের বেশি সময় কাটানোর পরামর্শ বিসিবি সভাপতির, ‘ওদেরকে এটাই সাজেস্ট করেছি যত অ?নুশীলন কম করে এটাকে শ্রীলঙ্কায় নিয়ে যাওয়া।’

মুমিনুলদের করোনা পরীক্ষা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ওরা তো ব্যক্তিগতভাবে টেস্ট করে আসবে বাড়িতে থাকতেই। আমাদের বলে দেওয়া, ল্যাব থেকে টেস্ট করতে হবে। যারা নেগেটিভ তাদেরকে আমরা ক?্যাম্পে ডাকব। ক?্যাম্পে আসার সঙ্গে সঙ্গে আমরা আরেকবার টেস্ট করাব। টোটাল তিনটা টেস্ট হবে।’

সহসা ফিরছে না ঘরোয়া ক্রিকেট

এদিকে বিসিবি প্রধান জানিয়েছেন, দেশে করোনার প্রকোপ না কমলে ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু হবে না। তিনি বলেন, ‘দুইটি কন্ডিশন হলে লিগ শুরু হতে পারে। আমি এখন পযর্ন্ত যা জানি। নম্বর ওয়ান, করোনা পরিস্থিতি যদি উন্নতি করে। দ্বিতীয়ত, ভ?্যাসকিন আসে। এই দুইটা ছাড়া লিগ চালু করার যৌক্তিকতা দেখি না।’

ইত্তেফাক