সুন্দরগঞ্জে বন্যার্তদের দুর্ভোগের অন্তঃনেই

1

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার উত্তর, উত্তর-পূর্ব ও পূর্ব-দক্ষিণ দিক দিয়ে প্রবাহিত তিস্তা নদীর পানি বর্তমানে ২৮ দশমিক ৭৭ সেন্টিমিটারে প্রবাহিত হওয়ায় বিপদসীমার শূণ্য দশমিক ৪৩ সেন্টিমিটার নিচে রয়েছে। সুন্দরগঞ্জ পয়েন্টে তিস্তা নদীর পানি বিপদসীমা নির্ধারীন করা হয়েছে ২৯ দশমিক ২০ সেন্টিমিটার।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার বিকেল ৩ টার রেকর্ড অনুযায়ী তিস্তা নদীর পানি ২৮ দশমিক ৭৭ সেন্টিমিটারে প্রবাহিত হতে থাকায় বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তীত রয়েছে বলে জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা গেছে। উপজেলা ত্রাণ শাখা সূত্র জানায়, চলতি বছরে বন্যার্ত পরিবারের সংখ্যা ১১ হাজার ৬’শ ৫০ অর্ন্তভূক্ত ৪৬ হাজার ৬’শ জনের জন্য এ পর্যন্ত বরাদ্দ এসেছে ১’শ ৪০ মেট্রিকটন চাল, ৯’শ ৫০ প্যাকেট শুকনো খাবার, নগদ ৫ লাখ টাকা, শিশু খাদ্য বাবদ আরও ১ লাখ ও গো-খাদ্য বাবদ ৫০ হাজার টাকা। চাহিদা তুলনায় বরাদ্দ ও বন্যার মেয়াদ দীর্ঘ্যতম হওয়ায় বন্যার্তদের জন্য আরও বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। চলমান বন্যা পরিস্থিতিতে রাস্তা-ঘাট, ঘর-বাড়ি, ক্ষেতের ফসল, মাছ চাষসহ জীবিকা নির্বাহের বিভিন্ন দিক থেকে বন্যার্তদের দুর্ভোগের অন্তঃনেই। ঘর-বাড়িতে পানি উঠায় নদীর বেরী বাঁধসহ বিভিন্ন স্থানে আশ্রিত বন্যার্ত মানুষজনকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে বলে জানা গেছে।