হিরো আলম আমার মর্যাদা বোঝেনি, এজন্যই বাদ : অনন্ত জলিল

1

অনন্ত জলিল তার চলচ্চিত্র থেকে বাদ দিয়েছেন ইতোমধ্যেই এই তথ্য জানিয়েছেন হিরো আলম নিজেই। এর কারণ হিসেবে হিরো আলম জানিয়েছেন জায়েদ খান প্রসঙ্গে চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির সংবাদ সম্মেলনে কথা বলারে পর তাকে আজ বৃহস্পতিবার তাকে ফোন করে বাদ দেওয়া হয়।

বিষয়টি স্বীকার করে অনন্ত জলিল সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন। যেখানে গতকালের প্রসঙ্গ ছাড়াও আরো অনেকগুলো প্রসঙ্গও রয়েছে।

জলিল বলেন, ‘আমি হিরো আলমকে নিয়ে কোনও সিনেমা বানাবো না এবং পঞ্চাশ হাজার টাকা সাইনিং মানি ফেরৎ নিবনা! সিংহভাগ বিনোদন সাংবাদিকরা এবং চলচ্চিত্র পরিবারের সকল গুণীজনরা হিরো আলম কে নিয়ে সিনেমা না বানানোর জন্য আপত্তি জানাচ্ছেন। এবং রিসেন্টলি তার কিছু অশ্লীল ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সকলেই আবারো আমাকে নিষেধ করছেন, তাকে নিয়ে সিনেমার না বানানোর।’

তিনি বলেন, ‘সব সময় আমি বিব্রত হচ্ছি, হিরো আলমের এসব বিতর্কিত বিষয় গুলোর জন্য । দীর্ঘদিন যাবৎ আমি চলচ্চিত্র অঙ্গনে সম্মানের সহিত কাজ করে আসছি, চলচিত্রের প্রতিটি সংগঠনের সাথে ভালো সম্পর্ক আছে , প্রতিটি সংগঠনই আমাকে সন্মনের চোখে দেখে। তাই এই সন্মন রক্ষার্থে , বিতর্কিত কাউকে নিয়ে আমি সিনেমা বানাতে চাইন না।’

চলচ্চিত্রের কোনো সংগঠনই চাইছে না হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা বানাতে, এমনই দাবি করে অনন্ত জলিল বলেন, ‘চলচ্চিত্রের কোনও সংগঠনই চাচ্ছেনা যে আমি হিরো আলমকে নিয়ে সিনেমা বানাই। চলচ্চিত্রের প্রত্যকটি সংগঠনের সন্মানার্থে আমিও চাইনা বিতর্কিত কাউকে নিয়ে সিনেমা বানাতে।’

মোস্ট ওয়েলকাম খ্যাত এই নায়ক বলেন, ‘আরেকটি কারণ, উল্ল্যেখ না করলেই নয়। কিছুদিন আগে আমি নিজ উদ্যোগে জায়েদ খানের সঙ্গে হিরো আলমকে মিল করিয়ে দিয়েছিলাম, এবং প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও তাদেরকে নিয়ে একসঙ্গে লাঞ্চ করেছিলাম। মীমাংসা করে দেওয়ার পরেও একই বিষয় নিয়ে বিভিন্ন জায়গায় হিরো আলম মন্তব্য করছেন যা মোটেও কাম্য নয়।’

অনন্ত জলিলের মর্যাদা হিরো আলম বোঝেনি উল্লেখ করে এই নায়ক বলেন, ‘আমার এত ব্যস্ততার মাঝেও আমি তাকে পাশে বসিয়েছিলাম, সে আমার মর্যাদা বোঝে নাই । আমার মর্যাদা যেহেতু বোঝেনাই তাই আমি চাইনা ভবিষ্যতে তার দ্বারা আমার মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হোক। আমি চাচ্ছিলাম, তার পাশে দাঁড়িয়ে তাকে সহযোগিতা করার, যাতে করে তার উপকার হয়। এ ধরনের চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য মানুষের সঙ্গে আমার কাজ করা সম্ভব না। তার এই চারিত্রিক বৈশিষ্ট্যের কারণে আমি আর তাকে নিয়ে সিনেমা বানাবো না, পঞ্চাশ হাজার টাকা সাইনিং মানি যেটি দিয়েছি সেটি আমি চাইছি না , সেটি তাকে আমি দিয়ে দিলাম।’

অনন্ত জলিলের সিনেমা থেকে বাদ হিরো আলম